ভবনে আসিল অতিথি সুদূর

ভবনে আসিল অতিথি সুদূর।
সহসা উঠিল বাজি রুমু রুমু ঝুম
নীরব অঙ্গনে চঞ্চল নূপুর।।
মুহু-মুহু বন -কুহু বোলে
দোয়েল ধ্যান ভুলি চমকি আখিঁ খোলে
কে গো কে বলে বন-ময়ূর।।
দগ্ধ হিয়ার জ্বালা জুড়ায়ে
সজল মেঘের শীতল চন্দন কে দিল বুলায়ে?
বকুল কেয়া বীথি হ’তে
ছুটে এলো সমীরণ চঞ্চল স্রোতে
চাদিঁনী নিশীথের আবেশ আনে
মিলন তন্দ্রাতুর অলস-দুপুর।।