চোখের চাতক

চোখের চাতক প্রধানত গজল গানের বই গ্রন্থটি। প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয় ২১ ডিসেম্বর (অগ্রহায়ণ ১৩৩৬)। প্রকাশক ছিলেন ডি এম লাইব্রেরি। পৃষ্ঠা ৬+৬৫। মূল্য ছিল এক টাকা ও রাজ সংস্করণ পাঁচ সিকা। গ্রন্থটি উৎসর্গ করা হয়েছিল কল্যাণীয়া বীণা-কণ্ঠী প্রতিভা সোমকে যিনি পরবর্তীকালে সুসাহিত্যিক প্রতিভা বসু নামে খ্যাত।

মোট ৫৩ টি গান আছে এই গ্রন্থে। গজলগুলি হলো:

আমার কোন কুলে আজ ভিড়ল তরী
কাঁদিতে এসেছি আপনারে লয়ে
ছাড়িতে পরান নাহি চায়
কে তুমি দূরের সাথী
আজি এ শ্রাবণ-নিশি কাটে কেমনে
আজি বাদল ঝরে মোর একেলা ঘরে
মোর ঘুমঘোরে এলে মনোহর
কেউ ভোলে না কেউ ভোলে
যাও যাও তুমি ফিরে
ফাগুন-রাতের ফুলের নেশায়
নিশীথ-স্বপন তোর ভুলে যা
ঘোর তিমির ছাইল
দারুণ পিপাসায় মায়া মরীচিকায়
এত কথা কি গো কহিতে জানে
মন কেন উদাসে
আমার গহীন জলের নদী
তোমায় কুলে তুলে বন্ধু
আমার ‘সাম্পান’ যাত্রী না লয়
ওরে মাঝি ভাই
কেন প্রাণ ওঠে কাঁদিয়া
আঁধার রাতে কে গো একেলা
কি হবে লাল পাল তুলে ভাই
ভাঙা মন আর জোড়া নাহি চায়
আমার দুখের বন্ধু, তোমার কাছে
আমি কি সুখে লো গৃহে রব
ফুল-কিশোরী! জাগো জাগো
জাগো জাগো পোহাল রাতি
কে এলো
এলে কি শ্যামল পিয়া কাজল মেঘে
জনম জনম গেল আশা-পথ চাহি
কেন নিশি কাটালি অভিমানে
পেয়ে কেন নাহি পাই হৃদয়ে মম
আসিলে কে অতিথি সাঁঝে
না মিটিতে সাধ মোর নিশি পোহায়
পর- জনমে দেখা হবে প্রিয়
বনে বনে দোলা লাগে

error: